বাংলাদেশ উৎসবের দেশ। এদেশের মানুষ ঐতিহ্যবাহী, ক্যাজুয়াল , ওয়েস্টার্ণ পোশাক পরিধান করে রঙিন বিভিন্ন থিমে প্রতিটি উৎসব উদযাপন করে। নতুন নতুন জামাকাপড়, বিভিন্ন ধরণের খাবার সহ বন্ধুবান্ধব এবং পরিবারের সাথে উদযাপন করতে দেখা যায়। পহেলা ফাল্গুন প্রতি বছর বাংলা মাসের বসন্তের প্রথম দিনে উদযাপিত হয়। পুরো দেশটি খুব বর্ণিলভাবে জমকালো পোশাক পরে দিনটি উদযাপন করে। পহেলা ফাল্গুন ১৩ ফেব্রুয়ারি পালিত হত, তবে গত বছর থেকে এটি ১৪ ফেব্রুয়ারি ভ্যালেন্টাইন্স ডে-এর সাথে মিলে যায়। যা এই দিনটিকে উৎসবপ্রেমীদের কাছে আরো বিশেষ করে তুলেছে। উদযাপনের সাথে সাথে, কেনা কাটাতে ও পরিবর্তন দেখা যায়। শহরের মার্কেটগুলোতে দেখা যায় রঙিন পোশাক কেনার উপচে পড়া ভিড়। গ্রামীণ ইউনিক্লো বিভিন্ন উপলক্ষ ও উদযাপনকে কেন্দ্র করে গ্রাহকদের নির্দিষ্ট চাহিদা পূরণের জন্য নতুন নতুন কালেকশন নিয়ে আসে। যেহেতু ১৪ই ফেব্রুয়ারি ভ্যালেন্টাইন্স ডে-র সাথে ফাল্গুন উদযাপিত হয়, তাই ভ্যালেন্টাইনের পোশাকের বড় একটি চাহিদা থাকে । এই বছর ফাল্গুন এবং ভ্যালেন্টাইন্স ডে কে কেন্দ্র করে ডিজিটাল প্রিন্টেড কামিজ, টপস, টিউনিকস, এমব্রয়ডারি স্ক্যান্টস পাওয়া যাবে মেয়েদের জন্য। ছেলেদের জন্য রয়েছে প্রিন্টেড শার্ট, বিজনেস শার্ট, প্রিন্টেড পোলো, স্ট্রাইপড পোলো শার্ট এবং আরও অনেক আইটেম এখন পাওয়া যাচ্ছে। ফাল্গুন এবং ভ্যালেন্টাইনের সাথে মিলিয়ে, গ্রামীণ ইউনিক্লো’র সমস্ত নতুন কালেকশনগুলো সাজানো হয়েছে। বিভিন্ন রঙিন পোশাকের পাশাপাশি অনেক হালকা রঙের পোশাকও পাওয়া যাচ্ছে। ঢাকার অভ্যন্তরে এবং ঢাকার আশেপাশে বিশিষ্ট স্থানে ১৬টি আউটলেট সহ গ্রামীণ ইউনিক্লো কাস্টমারদের সেবা দিয়ে যাচ্ছে। গ্রাহকরা ১৬ টি আউটলেটে ফাল্গুন এবং ভ্যালেন্টাইন কালেকশন পাবেন অথবা অনলাইন অর্ডারের মাধ্যমে হোম ডেলিভারিও পেতে পারেন। গ্রামীণ ইউনিক্লোর বসুন্ধরা সিটি, যমুনা ফিউচার পার্ক, ধানমন্ডি সাইন্সল্যাব মোড়, কাঁটাবন মোড়, খিলগাঁও তালতলা, নয়াপল্টন, মোহাম্মদপুর রিং রোড, ধানমন্ডি মেট্রো শপিং মল, যাত্রাবাড়ি শহীদ ফারুক রোড, ওয়ারী র‌্যাংকিন স্ট্রিট, গুলশান বাড্ডা লিংক রোড, সাভার সিটি সেন্টার, নিউ এলিফ্যান্ট রোড, বেইলি রোড, জয়দেবপুর বাজার রোড এবং নরসিংদী বৌয়াকুঢ় মোড় স্টোরে পাওয়া যাবে। আরও জানতে ভিজিট করুন: www.grameenuniqlo.com/ , www.facebook.com/grameenuniqlo/, www.instagram.com/grameenuniqlo/